ঢাকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তুফান’ কি পাইরেসির কবলে

অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ও এফটিপি সার্ভারগুলো থেকে সংগ্রহ করা যাচ্ছে ঈদুল আজহার আলোচিত সিনেমা ‘তুফান’। গতকাল (৮ জুলাই) সোমবার সন্ধ্যা থেকে ছড়াতে শুরু করেছে এরকম এক গুঞ্জন। তবে কি পাইরেসির কবলে পড়ল ‘তুফান’?

ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে বেশ কিছু কনটেন্ট যেগুলোর শিরোনাম ‘তুফান, ফুল মুভি’। যদিও শিরোনামের সঙ্গে ভেতরের কনটেন্ট সঙ্গতিপূর্ণ নয়। তবে কয়েকটি নির্ভরযোগ্য সূত্র নিশ্চিত করেছে যে, ঘটনাটি সত্য হতেও পারে।

ঘটনা নিশ্চিত হতে যোগাযোগ করা হলে ‘তুফান’-এর অন্যতম প্রযোজনা সংস্থা আলফা-আইয়ের কর্ণধার শাহরিয়ার শাকিল জানিয়েছেন, “তুফান” এমন একটি সিনেমা, যেটি হলে বসেই দেখতে হবে। পাইরেটেড ছবি দেখে তুফানের যথাযথ আউটপুট পাওয়া যাবে না।

পাইরেসি রোধ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘মুক্তির প্রথম দিন থেকেই পাইরেসি ঠেকাতে আমাদের দক্ষ টিম কাজ করছে। অনলাইনে যেসব প্ল্যাটফর্মে টুকটাক পাইরেটেড কপি এসেছিল, সেগুলো এরই মধ্যে ডাউন করে দেওয়া হয়েছে। এরপরও যদি সিনেমাটি অনলাইনে আসে, সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যেই পাইরেসি করুক না কেন, তার বিরুদ্ধে আমরা কঠোর পদক্ষেপ নেব।’

ঈদুল আজহায় মুক্তি পায় শাকিব খান অভিনীত সিনেমা ‘তুফান’। মুক্তির প্রথম দিন থেকেই দেশের প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি দেখতে উপচেপড়ে দর্শক। এরই মধ্যে বিশ্বের ১৫ দেশে চলছে তুফান। গত ২৮ জুন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, সুইডেন, জার্মানি, নেদারল্যান্ডস, স্পেন, পর্তুগাল, আবুধাবি, বাহরাইন, কাতার, ওমানের বেশ কিছু হলে ‘তুফান’ প্রদর্শনী শুরু হয়েছে।

গত ৫ জুলাই সিনেমাটি মুক্তি পায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। দেশে বেশ ভালো সাড়া ফেলেছিল ছবিটি। এরই মধ্যে ছবিটির পাইরেসির খবর নির্মাতা ও প্রযোজক মহলে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে।

নব্বই দশকের পটভূমিতে গ্যাংস্টারধর্মী গল্পে ‘তুফান’ পরিচালনা করেছেন রায়হান রাফি। এতে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাকিব খান। অন্যান্য চরিত্রে আরও রয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী, মিশা সওদাগর, ফজলুর রহমান বাবু, গাজী রাকায়েত, শহিদুজ্জামান সেলিম, মাসুমা রহমান নাবিলা, টলিউডের মিমি চক্রবর্তী প্রমুখ। যৌথভাবে ছবিটি প্রযোজনা করেছে বাংলাদেশের আলফা আই, চরকি ও ভারতের এসভিএফ।

তুফান’ কি পাইরেসির কবলে

আপডেট সময় ১২:২৭:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪

অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ও এফটিপি সার্ভারগুলো থেকে সংগ্রহ করা যাচ্ছে ঈদুল আজহার আলোচিত সিনেমা ‘তুফান’। গতকাল (৮ জুলাই) সোমবার সন্ধ্যা থেকে ছড়াতে শুরু করেছে এরকম এক গুঞ্জন। তবে কি পাইরেসির কবলে পড়ল ‘তুফান’?

ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে বেশ কিছু কনটেন্ট যেগুলোর শিরোনাম ‘তুফান, ফুল মুভি’। যদিও শিরোনামের সঙ্গে ভেতরের কনটেন্ট সঙ্গতিপূর্ণ নয়। তবে কয়েকটি নির্ভরযোগ্য সূত্র নিশ্চিত করেছে যে, ঘটনাটি সত্য হতেও পারে।

ঘটনা নিশ্চিত হতে যোগাযোগ করা হলে ‘তুফান’-এর অন্যতম প্রযোজনা সংস্থা আলফা-আইয়ের কর্ণধার শাহরিয়ার শাকিল জানিয়েছেন, “তুফান” এমন একটি সিনেমা, যেটি হলে বসেই দেখতে হবে। পাইরেটেড ছবি দেখে তুফানের যথাযথ আউটপুট পাওয়া যাবে না।

পাইরেসি রোধ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘মুক্তির প্রথম দিন থেকেই পাইরেসি ঠেকাতে আমাদের দক্ষ টিম কাজ করছে। অনলাইনে যেসব প্ল্যাটফর্মে টুকটাক পাইরেটেড কপি এসেছিল, সেগুলো এরই মধ্যে ডাউন করে দেওয়া হয়েছে। এরপরও যদি সিনেমাটি অনলাইনে আসে, সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যেই পাইরেসি করুক না কেন, তার বিরুদ্ধে আমরা কঠোর পদক্ষেপ নেব।’

ঈদুল আজহায় মুক্তি পায় শাকিব খান অভিনীত সিনেমা ‘তুফান’। মুক্তির প্রথম দিন থেকেই দেশের প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি দেখতে উপচেপড়ে দর্শক। এরই মধ্যে বিশ্বের ১৫ দেশে চলছে তুফান। গত ২৮ জুন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, সুইডেন, জার্মানি, নেদারল্যান্ডস, স্পেন, পর্তুগাল, আবুধাবি, বাহরাইন, কাতার, ওমানের বেশ কিছু হলে ‘তুফান’ প্রদর্শনী শুরু হয়েছে।

গত ৫ জুলাই সিনেমাটি মুক্তি পায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। দেশে বেশ ভালো সাড়া ফেলেছিল ছবিটি। এরই মধ্যে ছবিটির পাইরেসির খবর নির্মাতা ও প্রযোজক মহলে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে।

নব্বই দশকের পটভূমিতে গ্যাংস্টারধর্মী গল্পে ‘তুফান’ পরিচালনা করেছেন রায়হান রাফি। এতে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাকিব খান। অন্যান্য চরিত্রে আরও রয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী, মিশা সওদাগর, ফজলুর রহমান বাবু, গাজী রাকায়েত, শহিদুজ্জামান সেলিম, মাসুমা রহমান নাবিলা, টলিউডের মিমি চক্রবর্তী প্রমুখ। যৌথভাবে ছবিটি প্রযোজনা করেছে বাংলাদেশের আলফা আই, চরকি ও ভারতের এসভিএফ।