ঢাকা , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদ

অসুস্থ মেয়েকে সময় দিতে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী

  • ডেসটিনি ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০৪:৪৭:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪
  • ৩৪ বার পড়া হয়েছে

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের আমন্ত্রণে এই মুহূর্তে দেশটির রাজধানী বেইজিংয়ে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্ধারিত চারদিনের সফর শেষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার দেশের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল অসুস্থ থাকায় আজ রাতেই বেইজিং ছাড়ছেন প্রধানমন্ত্রী।

আজ বুধবার (১০ জুলাই) বেইজিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদ।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরত যাওয়ার কথা ছিল ১১ জুলাই। সেটি না হয়ে প্রধানমন্ত্রী বেইজিংয়ের স্থানীয় সময় আজ রাত ১০টায় বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা হবেন। এতে কিন্তু তার আনুষ্ঠানিক যে কর্মসূচি, সেটির বিন্দুমাত্র হেরফের হয়নি।’

নির্ধারিত সময়ের আগেই প্রধানমন্ত্রীর বেইজিং সফর সমাপ্ত করার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে তার কন্যা ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) আঞ্চলিক পরিচালক সায়মা ওয়াজেদ পুতুলেরও বেইজিং সফরের কথা ছিল। কিন্তু অসুস্থতার কারণে তিনি বেইজিং সফর করতে পারেননি। আমরা যেদিন বেইজিংয়ের উদ্দেশে রওনা করি, সেদিন সকালবেলা হঠাৎ করে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তিনি এখনও অসুস্থ। সফরসূচির অন্তর্ভুক্ত সব আনুষ্ঠানিক কাজ এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়ে যাওয়ায় আর মেয়েকে ছেড়ে দূরে থাকতে চাইছেন না প্রধানমন্ত্রী।

ডা. হাছান মাহমুদ বলেন, অসুস্থ মেয়েকে সময় দেওয়ার জন্যই মূলত রাতযাপন না করে বেইজিং ত্যাগ করছেন প্রধানমন্ত্রী।

জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদ

অসুস্থ মেয়েকে সময় দিতে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৪:৪৭:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের আমন্ত্রণে এই মুহূর্তে দেশটির রাজধানী বেইজিংয়ে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্ধারিত চারদিনের সফর শেষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার দেশের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল অসুস্থ থাকায় আজ রাতেই বেইজিং ছাড়ছেন প্রধানমন্ত্রী।

আজ বুধবার (১০ জুলাই) বেইজিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদ।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরত যাওয়ার কথা ছিল ১১ জুলাই। সেটি না হয়ে প্রধানমন্ত্রী বেইজিংয়ের স্থানীয় সময় আজ রাত ১০টায় বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা হবেন। এতে কিন্তু তার আনুষ্ঠানিক যে কর্মসূচি, সেটির বিন্দুমাত্র হেরফের হয়নি।’

নির্ধারিত সময়ের আগেই প্রধানমন্ত্রীর বেইজিং সফর সমাপ্ত করার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে তার কন্যা ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) আঞ্চলিক পরিচালক সায়মা ওয়াজেদ পুতুলেরও বেইজিং সফরের কথা ছিল। কিন্তু অসুস্থতার কারণে তিনি বেইজিং সফর করতে পারেননি। আমরা যেদিন বেইজিংয়ের উদ্দেশে রওনা করি, সেদিন সকালবেলা হঠাৎ করে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তিনি এখনও অসুস্থ। সফরসূচির অন্তর্ভুক্ত সব আনুষ্ঠানিক কাজ এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়ে যাওয়ায় আর মেয়েকে ছেড়ে দূরে থাকতে চাইছেন না প্রধানমন্ত্রী।

ডা. হাছান মাহমুদ বলেন, অসুস্থ মেয়েকে সময় দেওয়ার জন্যই মূলত রাতযাপন না করে বেইজিং ত্যাগ করছেন প্রধানমন্ত্রী।