ঢাকা , মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সংঘবদ্ধচক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার: ১ টি মোটরসাইকেল উদ্ধার

রাজশাহী জেলার তানোর থানা পুলিশ কর্তৃক সংঘবদ্ধচক্রের ২ সদস্য-কে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেইসাথে একটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত অভিযুক্ত শ্রী জহন মুর্মু (৩৫) এবং মো: শফিকুল ইসলাম (৪২)। শ্রী জহন মুর্মু রাজশাহী জেলার তানোর থানার পাচন্দরের কুন্দাইন গ্রামের নরেন মুর্মুর পুত্র এবং মো: শফিকুল ইসলাম একই জেলার দুর্গাপুর থানার মহিপাড়ার জেহের উদ্দিনের পুত্র।

ঘটনাসূত্রে জানা যায়, মো: মতিউর রহমানের ১২৫ সিসির বাজাজ ডিসকভারি মডেলের একটি মোটরসাইকেল রাজশাহীর তানোরের কৃষ্ণপুরে তার নিজ বসতবাড়ি থেকে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রি.রাত আনুমানিক ১১:০০ টা থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রি ভোর ০৫:৩০ টার মধ্যে যে-কোনো সময়ে চুরি হয়।

এ চুরির ঘটনায় মো: মতিউর রহমান বাদী হয়ে তানোর থানায় একটি চুরি মামলা রুজু করান। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে, শ্রী জহন মুর্মু নামের এক চোর ঐ মোটরসাইকেলটি চুরি করেছে।

এমন সংবাদের ভিত্তিতে, রাজশাহী জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস্) জনাব সনাতন চক্রবর্তীর নির্দেশে তানোর থানা পুলিশ আজ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রি. রাত ০০:৩০ টায় তানোর থানার পাচন্দরের কুন্দাইন গ্রাম হতে শ্রী জহন মুর্মু-কে গ্রেফতার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পারে সে ঐ মোটরসাইকেলটি মো: শফিকুল ইসলামের নিকট ৭০,০০০ টাকায় বিক্রি করেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় তানোর থানা পুলিশ আজ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রি. রাত ০২:৩০ টায় রাজশাহীর দুর্গাপুরের মহিপাড়ায় মো: শফিকুল ইসলামের বসতবাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে চুরি হওয়া ঐ মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে। সেইসাথে পুলিশ অভিযুক্ত মো: শফিকুল ইসলাম-কে গ্রেফতার করে।

উল্লেখ্য, মো: শফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে রাজশাহীর বিভিন্ন থানায় ইতিপূর্বে মাদক ও চুরির ৩ টি মামলা রয়েছে। গ্রেফতারকৃত অভিযুক্তদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

সংঘবদ্ধচক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার: ১ টি মোটরসাইকেল উদ্ধার

আপডেট সময় ০৮:০৯:৩৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

রাজশাহী জেলার তানোর থানা পুলিশ কর্তৃক সংঘবদ্ধচক্রের ২ সদস্য-কে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেইসাথে একটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত অভিযুক্ত শ্রী জহন মুর্মু (৩৫) এবং মো: শফিকুল ইসলাম (৪২)। শ্রী জহন মুর্মু রাজশাহী জেলার তানোর থানার পাচন্দরের কুন্দাইন গ্রামের নরেন মুর্মুর পুত্র এবং মো: শফিকুল ইসলাম একই জেলার দুর্গাপুর থানার মহিপাড়ার জেহের উদ্দিনের পুত্র।

ঘটনাসূত্রে জানা যায়, মো: মতিউর রহমানের ১২৫ সিসির বাজাজ ডিসকভারি মডেলের একটি মোটরসাইকেল রাজশাহীর তানোরের কৃষ্ণপুরে তার নিজ বসতবাড়ি থেকে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রি.রাত আনুমানিক ১১:০০ টা থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রি ভোর ০৫:৩০ টার মধ্যে যে-কোনো সময়ে চুরি হয়।

এ চুরির ঘটনায় মো: মতিউর রহমান বাদী হয়ে তানোর থানায় একটি চুরি মামলা রুজু করান। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে, শ্রী জহন মুর্মু নামের এক চোর ঐ মোটরসাইকেলটি চুরি করেছে।

এমন সংবাদের ভিত্তিতে, রাজশাহী জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস্) জনাব সনাতন চক্রবর্তীর নির্দেশে তানোর থানা পুলিশ আজ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রি. রাত ০০:৩০ টায় তানোর থানার পাচন্দরের কুন্দাইন গ্রাম হতে শ্রী জহন মুর্মু-কে গ্রেফতার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পারে সে ঐ মোটরসাইকেলটি মো: শফিকুল ইসলামের নিকট ৭০,০০০ টাকায় বিক্রি করেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় তানোর থানা পুলিশ আজ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রি. রাত ০২:৩০ টায় রাজশাহীর দুর্গাপুরের মহিপাড়ায় মো: শফিকুল ইসলামের বসতবাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে চুরি হওয়া ঐ মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে। সেইসাথে পুলিশ অভিযুক্ত মো: শফিকুল ইসলাম-কে গ্রেফতার করে।

উল্লেখ্য, মো: শফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে রাজশাহীর বিভিন্ন থানায় ইতিপূর্বে মাদক ও চুরির ৩ টি মামলা রয়েছে। গ্রেফতারকৃত অভিযুক্তদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।