ঢাকা , মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিআরটিএ ও যাত্রী কল্যান সমিতি

সেপ্টেম্বরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪১০ জনের মৃত্যু

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) হিসেবে সারাদেশে ৪৫৪টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৪১০ জন নিহত হয়েছেন। আর বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির হিসেবে একই মাসে ৪০২টি সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৪১৭ জনের।

সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনার এই তথ্য জানা যায় বিআরটিএ ও বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির পৃথক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে।

বিআরটিএ চেয়াম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এসব দুর্ঘটনা ও নিহতের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৮৩টি দুর্ঘটনায় ৮৩ নিহত এবং ৮৭ জন আহত হয়েছেন। এছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগে ৮৭টি দুর্ঘটনায় ৬৯ নিহত এবং ১৯৯ জন আহত হয়েছেন; রাজশাহী বিভাগে ৭৬টি দুর্ঘটনায় ৬৭ নিহত এবং ৫৬ জন আহত হয়েছেন; খুলনা বিভাগে ৬৬টি দুর্ঘটনায় ৬৬ নিহত এবং ৬২ জন আহত হয়েছেন; বরিশাল বিভাগে ৩০টি দুর্ঘটনায় ২৫ নিহত এবং ৯৫ জন আহত হয়েছেন; সিলেট বিভাগে ২১টি দুর্ঘটনায় ২০ নিহত এবং ৬৪ জন আহত হয়েছেন; রংপুর বিভাগে ৫৮টি দুর্ঘটনায় ৪৭ নিহত এবং ৩৬ জন আহত হয়েছেন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৩৩টি দুর্ঘটনায় ৩৩ নিহত এবং ১০ জন আহত হয়েছেন।

সেপ্টেম্বর মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় সংগঠিত মোটরযানের মধ্যে মোটরকার ১৯টি, বাস ৮৪টি, পিকআপ ৩১টি, অটোরিকশা ৪১টি, ট্রাক ১৩৬টি, মোটরসাইকেল ১৫০টি, ব্যাটারিচালিত রিকশা ৫২টি, ইজিবাইক ৭টি, ট্রাক্টর ৭টি, অ্যাম্বুলেন্স ৫টি, ভ্যান ১৫টি, মাইক্রোবাস ১২টি ও অন্যান্য যান ১১৯টিসহ সর্বমোট ৬৭৮টি।

এসবের মধ্যে মোটরকার দুর্ঘটনায় ১২ জন, বাস দুর্ঘটনায় ২৫, পিকআপ ভ্যান দুর্ঘটনায় ১০, অটোরিকশা দুর্ঘটনায় ৩৬, ট্রাক দুর্ঘটনায় ৩৪, মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ১৩০, ব্যাটারিচালিত রিকশা দুর্ঘটনায় ২৬, ইজিবাইক দুর্ঘটনায় ২০, ট্রাক্টর দুর্ঘটনায় ৩, অ্যাম্বুলেন্স দুর্ঘটনায় ২, ভ্যান দুর্ঘটনায় ৬, মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় ৩ ও অন্যান্য যান দুর্ঘটনায় ১০৩ জনসহ সর্বমোট ৪১০ জন নিহত হয়।

এদিকে দুর্ঘটনা নিয়ে কাজ করা সংগঠন বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি গত শনিবার (৭ অক্টোবর) গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশের জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সড়ক, রেল ও নৌ দুর্ঘটনার সংবাদ পর্যবেক্ষণ করে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

প্রতিবেদন বলা হয়, ১ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৪০২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৪১৭ জন নিহত এবং ৬৫১ জন আহত হয়েছেন। রেলপথে ৪৯টি দুর্ঘটনায় ৫১ জন নিহত এবং ২৬ জন আহত হয়েছেন। এ ছাড়া নৌপথে ১৬টি দুর্ঘটনায় ২৮ জন নিহত, ৪ জন আহত ছাড়া এবং ৩ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

এ ছাড়া সারা দেশে মোট দুর্ঘটনার ৫ দশমিক ৪৭ শতাংশ ঢাকা শহরে, ০ দশমিক ৪৯ শতাংশ চট্টগ্রাম শহরে এবং ০ দশমিক ২৪ শতাংশ রেলক্রসিংয়ে ঘটেছে।

মোট দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য রয়েছেন ১০ জন, ১৪৩ জন চালক, পথচারী ৬৬ জন, ৬০ জন পরিবহন শ্রমিক, ৬৫ জন শিক্ষার্থী, ৮ জন শিক্ষক, ৭৪ জন নারী ও শিশু রয়েছে ৪৪ জন।

বিআরটিএ ও যাত্রী কল্যান সমিতি

সেপ্টেম্বরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪১০ জনের মৃত্যু

আপডেট সময় ০৯:১৭:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ অক্টোবর ২০২৩

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) হিসেবে সারাদেশে ৪৫৪টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৪১০ জন নিহত হয়েছেন। আর বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির হিসেবে একই মাসে ৪০২টি সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৪১৭ জনের।

সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনার এই তথ্য জানা যায় বিআরটিএ ও বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির পৃথক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে।

বিআরটিএ চেয়াম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এসব দুর্ঘটনা ও নিহতের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৮৩টি দুর্ঘটনায় ৮৩ নিহত এবং ৮৭ জন আহত হয়েছেন। এছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগে ৮৭টি দুর্ঘটনায় ৬৯ নিহত এবং ১৯৯ জন আহত হয়েছেন; রাজশাহী বিভাগে ৭৬টি দুর্ঘটনায় ৬৭ নিহত এবং ৫৬ জন আহত হয়েছেন; খুলনা বিভাগে ৬৬টি দুর্ঘটনায় ৬৬ নিহত এবং ৬২ জন আহত হয়েছেন; বরিশাল বিভাগে ৩০টি দুর্ঘটনায় ২৫ নিহত এবং ৯৫ জন আহত হয়েছেন; সিলেট বিভাগে ২১টি দুর্ঘটনায় ২০ নিহত এবং ৬৪ জন আহত হয়েছেন; রংপুর বিভাগে ৫৮টি দুর্ঘটনায় ৪৭ নিহত এবং ৩৬ জন আহত হয়েছেন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৩৩টি দুর্ঘটনায় ৩৩ নিহত এবং ১০ জন আহত হয়েছেন।

সেপ্টেম্বর মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় সংগঠিত মোটরযানের মধ্যে মোটরকার ১৯টি, বাস ৮৪টি, পিকআপ ৩১টি, অটোরিকশা ৪১টি, ট্রাক ১৩৬টি, মোটরসাইকেল ১৫০টি, ব্যাটারিচালিত রিকশা ৫২টি, ইজিবাইক ৭টি, ট্রাক্টর ৭টি, অ্যাম্বুলেন্স ৫টি, ভ্যান ১৫টি, মাইক্রোবাস ১২টি ও অন্যান্য যান ১১৯টিসহ সর্বমোট ৬৭৮টি।

এসবের মধ্যে মোটরকার দুর্ঘটনায় ১২ জন, বাস দুর্ঘটনায় ২৫, পিকআপ ভ্যান দুর্ঘটনায় ১০, অটোরিকশা দুর্ঘটনায় ৩৬, ট্রাক দুর্ঘটনায় ৩৪, মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ১৩০, ব্যাটারিচালিত রিকশা দুর্ঘটনায় ২৬, ইজিবাইক দুর্ঘটনায় ২০, ট্রাক্টর দুর্ঘটনায় ৩, অ্যাম্বুলেন্স দুর্ঘটনায় ২, ভ্যান দুর্ঘটনায় ৬, মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় ৩ ও অন্যান্য যান দুর্ঘটনায় ১০৩ জনসহ সর্বমোট ৪১০ জন নিহত হয়।

এদিকে দুর্ঘটনা নিয়ে কাজ করা সংগঠন বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি গত শনিবার (৭ অক্টোবর) গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশের জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সড়ক, রেল ও নৌ দুর্ঘটনার সংবাদ পর্যবেক্ষণ করে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

প্রতিবেদন বলা হয়, ১ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৪০২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৪১৭ জন নিহত এবং ৬৫১ জন আহত হয়েছেন। রেলপথে ৪৯টি দুর্ঘটনায় ৫১ জন নিহত এবং ২৬ জন আহত হয়েছেন। এ ছাড়া নৌপথে ১৬টি দুর্ঘটনায় ২৮ জন নিহত, ৪ জন আহত ছাড়া এবং ৩ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

এ ছাড়া সারা দেশে মোট দুর্ঘটনার ৫ দশমিক ৪৭ শতাংশ ঢাকা শহরে, ০ দশমিক ৪৯ শতাংশ চট্টগ্রাম শহরে এবং ০ দশমিক ২৪ শতাংশ রেলক্রসিংয়ে ঘটেছে।

মোট দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য রয়েছেন ১০ জন, ১৪৩ জন চালক, পথচারী ৬৬ জন, ৬০ জন পরিবহন শ্রমিক, ৬৫ জন শিক্ষার্থী, ৮ জন শিক্ষক, ৭৪ জন নারী ও শিশু রয়েছে ৪৪ জন।