ঢাকা , মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ভিড় এড়ানোই মূল কারণ

ঈদের দ্বিতীয় দিনেও রাজধানীর বাস টার্মিনালে ভিড়

এ বছর ঈদের আগের দিন রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলোতে ঘরমুখো মানুষের তেমন একটা দেখা মেলেনি। ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া অনেক বাসেই অর্ধেক আসন ফাঁকা ছিল। তবে এর বিপরীত চিত্র দেখা গেল ঈদের দ্বিতীয় দিনে। মূলত ঈদ ও পয়লা বৈশাখসহ চার দিন ছুটি হাতে থাকায় আজ শুক্রবার (১২ এপ্রিল) অনেকেই গ্রামে যাচ্ছেন বেড়াতে।

রাজধানীর মালিবাগ, টিটিপাড়া, মানিকনগর, সায়েদাবাদের বেশ কয়েকটি দূরপাল্লার বাস কাউন্টারে এমন চিত্র লক্ষ করা গেছে। কাউন্টারগুলোতে এসে যাত্রীরা ভিড় করছেন। কোথাও কোথাও মিলছে না প্রত্যাশিত সময়ে টিকিট। কেউ সকাল ৬টায় কাউন্টারে এসে ৯টার বাস পেয়েছেন। আবার কেউ ৯টায় এসে পেয়েছেন ১১টা কিংবা তারও পরের বাস।

যাত্রীর তীব্র চাপ দেখা গেছে মানিকনগরের নোয়াখালীগামী কে কে ট্রাভেলস, হিমাচল পরিবহণ ও ড্রিম লাইন বাসের কাউন্টারেও। দুই ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে নোয়াখালী যাচ্ছেন ইস্রাফিল মিয়া। দুই ঘণ্টা আগে এসেও বাস পেতে বেগ পেতে হয়েছে তাকে। ইস্রাফিল জানান, ঈদের পরদিন সব সময় চাপ একটু কম থাকে। কিন্তু এবার এত মানুষ আগে কখনো দেখিনি।

বাসের সংকট থাকার কারণ হিসেবে পরিবহণ সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বেশির ভাগ বাস ঢাকার বাইরে। কিছু চালক ও সহকারী ছুটিতে থাকায় ঢাকা থেকে বাস কম ছাড়া যাচ্ছে। অবশ্য স্টার লাইন বাসের এক টিকিট বিক্রয় কর্মী জানান, আমাদের বাস পর্যাপ্ত আছে, সে অনুযায়ী যাত্রী বেশি। আমাদের যাত্রীর চাপ সব সময়ই এমন থাকে।

ভিড় এড়ানোই মূল কারণ

ঈদের দ্বিতীয় দিনেও রাজধানীর বাস টার্মিনালে ভিড়

আপডেট সময় ১২:০০:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪

এ বছর ঈদের আগের দিন রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলোতে ঘরমুখো মানুষের তেমন একটা দেখা মেলেনি। ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া অনেক বাসেই অর্ধেক আসন ফাঁকা ছিল। তবে এর বিপরীত চিত্র দেখা গেল ঈদের দ্বিতীয় দিনে। মূলত ঈদ ও পয়লা বৈশাখসহ চার দিন ছুটি হাতে থাকায় আজ শুক্রবার (১২ এপ্রিল) অনেকেই গ্রামে যাচ্ছেন বেড়াতে।

রাজধানীর মালিবাগ, টিটিপাড়া, মানিকনগর, সায়েদাবাদের বেশ কয়েকটি দূরপাল্লার বাস কাউন্টারে এমন চিত্র লক্ষ করা গেছে। কাউন্টারগুলোতে এসে যাত্রীরা ভিড় করছেন। কোথাও কোথাও মিলছে না প্রত্যাশিত সময়ে টিকিট। কেউ সকাল ৬টায় কাউন্টারে এসে ৯টার বাস পেয়েছেন। আবার কেউ ৯টায় এসে পেয়েছেন ১১টা কিংবা তারও পরের বাস।

যাত্রীর তীব্র চাপ দেখা গেছে মানিকনগরের নোয়াখালীগামী কে কে ট্রাভেলস, হিমাচল পরিবহণ ও ড্রিম লাইন বাসের কাউন্টারেও। দুই ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে নোয়াখালী যাচ্ছেন ইস্রাফিল মিয়া। দুই ঘণ্টা আগে এসেও বাস পেতে বেগ পেতে হয়েছে তাকে। ইস্রাফিল জানান, ঈদের পরদিন সব সময় চাপ একটু কম থাকে। কিন্তু এবার এত মানুষ আগে কখনো দেখিনি।

বাসের সংকট থাকার কারণ হিসেবে পরিবহণ সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বেশির ভাগ বাস ঢাকার বাইরে। কিছু চালক ও সহকারী ছুটিতে থাকায় ঢাকা থেকে বাস কম ছাড়া যাচ্ছে। অবশ্য স্টার লাইন বাসের এক টিকিট বিক্রয় কর্মী জানান, আমাদের বাস পর্যাপ্ত আছে, সে অনুযায়ী যাত্রী বেশি। আমাদের যাত্রীর চাপ সব সময়ই এমন থাকে।